কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট সহজে ব্যাকআপ নিবেন? | TOSHOST LTD

কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট সহজে ব্যাকআপ নিবেন?

রফিক সাহেব একজন ই কমার্স উদ্যোক্তা। তিনি তার ব্যবসা অনলাইনেই পরিচালনা করেন। প্রযুক্তি সম্পর্কে জানার সুবাদে তিনি তার ই কমার্স সাইট নিজেই পরিচালনা করেন। ব্যবসা ঠিকঠাক ভাবেই চলছে যতক্ষণ পর্যন্ত সার্ভার ঠিক ছিল।

একদিন সকালে ঘুম থেকে উঠলেন আর দেখলেন আপনার সাইট নেই ব্ল্যাংক পেজ দেখাচ্ছে! হাজার ঘণ্টার পরিশ্রম ১ মিনিটে নষ্ট হয়ে যেতে পারে শুধু মাত্র ১টি ভুলের কারনে

রফিক সাহেবের ঘটনা খুব খারাপ হতে পারত যদি না সার্ভার এর ব্যাকআপ না থাকতো । যদিও প্রায় ৩ দিন তার সাইট বন্ধ ছিল! এই যাত্রায় রফিক সাহেব হয়ত বেচে গেলেন। রফিক সাহেবের মত এই ভুল অনেকেই করেন।

সাম্প্রতিক OVH এর একটি অগ্নিকান্ডের ঘটনা নিশ্চয়ই আপনার মনে আছে। এরকম ঘটতে পারে যেকোনো সময় যেকোনো সার্ভার এ। তাদের ডাটা সেন্টার এর একটি বিশাল অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল । যেখানে অনেক অর্গানিজেশন বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুক্ষিন হয়েছিল। এছাড়াও WEBNX ও বড় ধরনের ক্ষতি হয়েছিল। যদিও অনেক কোম্পানি রিকভার করতে পেড়েছিল অনেকেই দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতির সম্মুক্ষিন হয়েছিল ।

Backup website

চলুন মূল আলোচনায় আসা যাক। অনাকাঙ্ক্ষিত এসব ঘটনা আপনি চাইলে সহজেই এড়াতে পারেন । এর জন্য যা লাগবে তা হল ব্যাকআপ ! ব্যাকআপ ! এবং ব্যাকআপ!

সাইট ব্যাকআপ এর পদ্ধতি

আজকে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট কিভাবে ব্যাকআপ নিব তা নিয়েই আলোচনা করবো। আমরা এখানে কয়েকটি ব্যাকআপ পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করবো।

আপনার সাইট যত বড় বা ছোট হোক না কেন আসা করি সমস্যা হবে না। চলুন দেখে আসি আমরা কি কি বিষয় নিয়ে আজকে আলোচনা করবো -

১। বড় সাইট (বড় ডাটাবেস ও ফাইল যুক্ত সাইট) কিভাবে ব্যাকআপ নিব?

২। প্লাগিন দিয়ে কিভাবে সহজে ব্যাকআপ নিব ।

লেখাটা খুব সাধারণ ব্যাবহার কারীদের কথা চিন্তা করেই লিখা হয়েছে । তাই চলুন আমরা সহজ পদ্ধতি গুলো নিয়েই আগে আলোচনা করি।

কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট ব্যাকআপ নিবেন?

আপনি হয়ত জেনে থাকবেন প্রথম ১০লাখ ইকমারস সাইটের এর মধ্যে প্রায় ২২% সাইট ওয়ার্ডপ্রেস এ তৈরি (Kinsta Support)। ওয়ার্ডপ্রেস এর এই জনপ্রিয়তাই একে আরও সমৃদ্ধ করেছে এবং করছে । শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস ডিরেক্টরিতে প্রায় ৫৮ হাজারেরও বেশি প্লাগিন রয়েছে ।

চলুন দেখে আসি কিছু জনপ্রিয় ব্যাকআপ প্লাগিন এবং এদের ব্যাবহার । আমরা কিছু ফ্রি এবং কিছু পেইড প্লাগিন নিয়ে ব্যাকআপ কিভাবে নিতে হয় তা দেখাব -

জনপ্রিয় কিছু ফ্রি প্লাগিনঃ

  • Akeeba backup Plugin
  • All In One WP Migration
  • Updrafts
  • VaultPress
  • BlogVault
  • Backupbuddy
  • BackWPUp
  • Sucuri Website Backups
  • Duplicator
  • WPVivid

আজকে আমরা Akeeba এবং All in one WP Migration সম্পর্কে আলোচনা করবো।

Akeeba Backup Plugin:

Akeeba প্রায় ২০১৭ সাল থেকেই বেশ জনপ্রিয় একটি ব্যাকআপ মাধ্যম। এর মাধ্যমে ফ্রিতে আপনি অনেক বড় বড় সাইট ও ব্যাকআপ নিতে পারবেন। তবে জুমলা এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর জন্য এটি বেশ জনপ্রিয়। চলুন দেখে আসি কিভাবে Akeeba Backup Plugin ব্যাবহার করে সাইট ব্যাকআপ নেয়া যায়।

যেহেতু আমরা আজকে ওয়ার্ডপ্রেস এর ব্যাকআপ নিয়ে আলোচনা করছি, কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট এর ব্যাকআপ নেয়া যাবে তা আলোচনা করা হবে -

স্টেপ ১ঃ 

প্রথমেই বলে নেয়া ভাল, থিম বা প্লাগিন ব্যাবহারের সময় অবশ্যই ওয়ার্ডপ্রেস এর ডিরেক্টরি থেকে ডাউনলোড করা সবচেয়ে নিরাপদ। তবে ওয়ার্ডপ্রেস এর বাইরেও আপনি অনেক ভাল থিম বা প্লাগিন পেয়ে থাকবেন যেমন আকিবার কথাই বলতে পারেন। 

যা বলছিলাম, অবশ্যই প্লাগিন টি আকিবার অফিসিয়াল সাইট থেকে ডাউনলোড করে নিবেন। বলে রাখা ভাল সাইটের ব্যাকআপ আকিবা ব্যাকআপ প্লাগিন টি ব্যাবহার করে নিতে পারলেও রিস্টোর এর সময় আপনাকে kickstart ব্যাবহার করে নিতে পারবেন।

আপনাদের সুবিদার্থে আকীবার ওয়েবসাইট টি দিয়ে দেয়া হল - https://www.akeeba.com/products/akeeba-backup-wordpress.html । নিচের স্ক্রিনশটের মত ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করে ডাউনলোড করে ফেলুন। রিস্টোর করতে চাইলে kickstart script টি https://www.akeeba.com/latest-kickstart-core.zip

স্টেপ ২ঃ

আকিবা ব্যাকআপ কোর প্লাগিন টি যেহেতু ওয়ার্ডপ্রেস এর ডিরেক্টরি তে নেই তাই আপনাকে প্লাগিনটি আপলোড করতে হবে । আপলোড করার জন্য আপনি plugins থেকে add new তে ক্লিক করুন ।

এইক্ষেত্রে আপনি যদি সরাসরি পারমিশন না পান বা ফাইল সাইজ বড় দেখায় আপনি সিপ্যানেল (সিপ্যানেল এ লগিন করার জন্য আপনি sitename.com:2083 তে যেতে পারেন) এর মাধ্যমে সরাসরি wp-content/plugin/ এই ডিরেক্টরি তে সরাসরি জিপ ফাইল টি রেখে এক্সট্রাক্ট করুন এই ক্ষেত্রে নিচের ছবিটি ফলো করতে পারেন ।

স্টেপ ৩ঃ 

ইন্সটল হবার পর আপনি সাইট আকিবার জন্য উপযোগী কিনা তা চেক করে নিতে পারেন । এক্ষেত্রে কনফিগারেশন অপশন থেকে কনফিগারেশন উইজার্ড অপশন টিতে ক্লিক করুন নিচের ছবির মত-

এরপর সব ঠিক থাকলে কিছুক্ষণ পর নিচের মত ছবি আসবে -

এবার চাইলে Backup Now এ ক্লিক করে আপনি ব্যাকআপ রাখতে পারেন।

Backup Process

After Successful Backup

এবার চলুন দেখে আসি কিভাবে ব্যাকআপ রিস্টোর করবেন আকিবার মাধ্যমে।

আপনি চাইলে বিভিন্ন তারিখের ব্যাকআপ নিতে পারবেন এবং ডাউনলোড করে পিসি অথবা ড্রাইভ এ রাখতে পারেন। 

চলুন দেখে আসি ব্যাকআপ কিভাবে রিস্টোর করবেন?

আকিবা রিস্টোর পদ্ধতি একটু আলাদা কিন্তু অন্যান্য ব্যাকআপ সিস্টেম এ সাইট ট্রান্সফার করলে কিছু সেটিং এর পরিবর্তন দেখা গেলেও আকিবাতে আপনি এই সমস্যায় পরবেন না । এছাড়াও মোটামুটি বড় সাইট ট্রান্সফার এর ক্ষেত্রেও আকিবা বেশ ভাল কাজ করে। চলুন দেখে আসি কিভাবে আকিবার মাধ্যমে সাইটের ব্যাকআপ রিস্টোর বা ট্রান্সফার করতে পারি। 

আকিবার ব্যাকআপ ফাইলের এক্সটেনশন .jpa. আপনি চাইলে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ডেশবোরড থেকে ফাইল টি ডাউনলোড করতে পারেন। এছাড়া চাইলে সিপ্যানেল থেকেও ডাউনলোড করতে পারেন । যদি সিপ্যানেল না থাকে সেই ক্ষেত্রে FileZilla বা MobaXterm ব্যাবহার করতে পারেন। 

এই ক্ষেত্রে আপনি উপরের directory অনুযায়ী গেলে ব্যাকআপ ফাইল পেয়ে যাবেন। 

Ristore এর জন্য আপনাকে কিকস্টার্ট ও সার্ভার এ রাখার প্রয়োজন পরবে। এইক্ষেত্রে .jpa extract এর জন্য আপনার ফাইলটির প্রয়োজন হবে।

চলুন দেখে আসি কিভাবে kickstart দিয়ে রিস্টোর করা যায়। এক্ষেত্রে কিকস্টার্ট সার্ভার এ রেখে ব্যাকআপ ফাইলটি ও সেখানে রেখে sitename.com/kickstart.php url এ গিয়ে রান করুন। এক্ষেত্রে আগে থেকে আপনার ডাটাবেস এবং ইউসার নেম বানিয়ে রাখতে হবে। কাজটি কঠিন মনে হলে আপনি চাইলে আগে One click setup এর মাধ্যমে আগে ওয়ার্ডপ্রেস সেটাপ দিবেন তারপর আপনার wp-config.php file এর থেকে user এবং database নেমটি নিয়ে নিতে পারবেন সহজেই।

পুরো রিস্টোর প্রসেস টি দেখার জন্য আপনি নিচের ভিডিও টি দেখুন।

All In One WP Migration

All in one wp migration প্লাগিনটি আপনারা হয়ত অনেকেই চিনে থাকবেন । তবে বড় ধরনের ব্যাকআপ এর ক্ষেত্রে প্রায়ই সমস্যা দেখা দেয়। তবে এই প্লাগিন টি মাঝারি বা ছোট সাইট গুলোর জন্য বেশ উপযোগী। এটা একটা ফ্রি প্লাগিন যা আপনি ওয়ার্ডপ্রেস Directory তেই পাবেন। চলুন দেখে আসি কিভাবে প্লাগিন টি ইন্সটল করতে পারবেন।

Install Now এ ক্লিক করে একটিভ করুন ।

All in one wp migration আরও কিছু সুবিধা আছে যেমন আপনি চাইলে আপনার ব্যাকআপ গুলো সরাসরি ড্রাইভ বা Dropbox এর মত জায়গায় সরাসরি স্টোর করতে পারবেন । 

Backup By Google Drive

এর সবচেয়ে বড় সমস্যা হল গুগল ড্রাইভ বা অন্যান্য থার্ড পার্টি স্টোরেজ এর সুবিধার জন্য আপনাকে পেইড এক্সটেন্সান নিতে হবে । এছাড়া ফ্রি প্লাগিন এ আপনি ৫১২এমবি এর মত ব্যাকআপ ফিচার পাবেন।

এছাড়া Updrafts, VaultPress, BlogVault, Backupbuddy, BackWPUp, Sucuri Website Backups, Duplicator, WPVivid প্লাগিন গুলো বেশ জনপ্রিয় ব্যাকআপ নেয়ার ক্ষেত্রে। প্রায় প্রত্যেকটি প্লাগিন এর এ কিছু সিমাবদ্ধতা আছে। তবে updraft, backupbuddy, এবং duplicator এর pro ভার্সন এ আপনি অটো শিডিউল ব্যাকআপ এবং রিমোট ব্যাকআপ ও নিতে পারবেন।

বড় সাইট বা ম্যানুয়াল ব্যাকআপ এর পদ্ধতি

প্লাগিনগুলো প্রায়সময়ই দেখা যায় সার্ভার এর কনফিগারেশন এর সাথে কনফ্লিক্ট করে। এক্ষেত্রে ম্যানুয়াল ব্যাকআপ ই ভরসা। ম্যানুয়াল ব্যাকআপ এর ক্ষেত্রে ডাটাবেস এবং ফাইল আলদা ভাবে ডাউনলোড করে নিবেন।

এক্ষেত্রে অনেক বড় ফাইল হলে সি প্যানেল থেকে ডিরেক্ট ডাউনলোড এর ক্ষেত্রে সেশন এক্সপায়ারড এর মত ঘটনা ঘটে থাকে তাই ftp software গুলো ব্যাবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে ফাইল কম্প্রেস করে নিলে কিছুটা সুবিধা পাবেন। এতে ফাইল ডেমেজ এর সম্ভবনা কমে যায় এবং ডাউনলোড দ্রুত হয় কম্প্রেস হবার সুবাদে ।

এছাড়া SSH এর মাধ্যমে সার্ভার থেকে সার্ভার এও দ্রুত ট্রান্সফার করতে পারেন। এনিয়ে পরবর্তী কোন আর্টিকেল এ আলোচনা করবো।

চলুন আলচনায় ফিরা যাক - 

প্রথমে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটলেশন এর ভিতর থেকে wp-content ফাইল টি জিপ করে ডাউনলোড করুন এক্ষেত্রে নিচের স্ক্রিনশট টি লক্ষ্য করতে পারেন।

Step1:

Step 2:

Step 3:

Step 4

Then We need to Download the database

Go to phpmyadmin

Click Export

Your Backup Completed :) ..

চলুন দেখে আসি ব্যাকআপ কিভাবে রিস্টোর করবো ? ঠিক একি ভবে আমরা ব্যাকআপ রিস্টোর করবো যেভাবে আমরা ব্যাকআপ নিয়েছিলাম।

কাজের সুবিদার্থে আমরা প্রথমে ওয়ার্ডপ্রেস সেটআপ করবো। তারপর ডাটাবেস এর নাম এবং পাসওয়ার্ড নিব। তারপর wp-content folder টি delete করে আমাদের ব্যাকআপ wp-content ফোল্ডার টি আপলোড করবো।

এবার ডাটাবেজ এর পালা। আগের মত database টি আমরা খুজে বের করবো। এর পর কনফ্লিক্ট এড়ানোর জন্য আগের ডাটাবেস এর সব টেবিল ডিলেট করে দিব। এই ক্ষেত্রে কিভাবে ডাটাবেস এ কিভাবে এই কাজ টি করতে হয় টা নিচের স্ক্রিনশট টিউ দেখলে বুঝতে পারেবেন - 

এর পর ইম্পোরট অপশন এ ক্লিক করে আমাদের ব্যাকআপ SQL ফাইলটি আপলোড করবেন নিচের মত -

এখানে বলে রাখা ভাল আপলোড লিমিট কম থাকলে Hosting company এর সাথে কথা বলে লিমিট বাড়িয়ে নিন আপ্নার প্রয়োজন অনুযায়ী ।

ধন্যবাদ আজ এই পর্যন্তই । আর হ্যাঁ, আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না!